‘ওয়াই-ফাই পাসওয়ার্ড জয় বাংলা, তাই উনি ব্যবহার করবেন না’…..।

জাতীয় সংসদের কক্ষে মোবাইল ফোনের নেটওয়ার্ক না থাকার অভিযোগ তুলেন বিএনপির সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা। সংসদের পঞ্চদশ অধিবেশনে আলোচনার এক ফাঁকে এই অভিযোগ তোলার পর তাকে ওয়াইফাই ব্যবহারের আহ্বান জানান স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী।এসময় আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ‘টিপ্পনী কেটে’ বলেন, ‘ওয়াইফাইয়ের কোড (পাসওয়ার্ড) জয় বাংলা; তাই বোধহয় উনি ব্যবহার করবেন না।’ এসময় সরকারি দলের আসনগুলোতে হাসির রোল পড়ে।

আজ মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) জাতীয় সংসদে ‘বিরোধীদলীয় নেতা ও উপনেতা (পারিতোষিক ও বিশেষাধিকার) বিল-২০২১’ পাসের আলোচনার সময় এ ঘটনা ঘটে।ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ ধারা অনুযায়ী সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দিতে পারে।’ রুমিনের পর দুজন এমপি বক্তব্য দেন। তারপর সাংসদের বক্তব্যের জবাব দিতে ওঠেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। এ সময় সংসদকক্ষে ছিলেন না রুমিন। রুমিনের উদ্দেশে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘উনি চলে গেছেন। আমার বক্তব্য উনার শোনার দরকার নেই।

উনার বক্তব্য আমার কানে ঢুকিয়ে উনি চলে গেছেন। কিছু সময় পর বিলটির সংশোধনী প্রস্তাব উত্থাপন করতে গিয়ে রুমিন আইনমন্ত্রীর কথার জবাব দেন।তিনি বলেন, ‘থ্রি–জি, ফোর–জি, ফাইভ–জির কথা শুনি। কিন্তু সংসদে নেটওয়ার্ক থাকে না মাননীয় স্পিকার। রুমিন জানান, তিনি ফৌজদারি কার্যবিধি মুঠোফোনে দেখতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সংসদকক্ষে নেটওয়ার্ক না থাকায় তা দেখা যাচ্ছিল না।

এ কারণে তিনি বাইরে গিয়েছিলেন। পরে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী রুমিনকে সংসদের ওয়াই-ফাই ব্যবহারের পরামর্শ দেন। স্পিকার বলেন, ‘ওয়াই–ফাই কানেক্ট করার চেষ্টা করুন। এখানে ওয়াই–ফাই থাকার কথা। পরে আইনমন্ত্রী আলোচনায় অংশ নিয়ে বলেন, লেন, ‘ওয়াই-ফাইয়ের কোড জয় বাংলা; এ জন্য উনি (রুমিন) তা ব্যবহার করবেন না।’ পরে আইনমন্ত্রী নিজের মুঠোফোনে ফৌজদারি কার্যবিধি বের করে পড়ে শোনান।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*